×
  • আপডেট টাইম : 19/07/2019 09:21 PM
  • 85 বার পঠিত

আওয়ামী লীগ সরকার সবসময়ই সংকট ও দুর্যোগে মানুষের পাশে থেকেছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এবারের বন্যায়ও সংশ্লিষ্ট সকল মন্ত্রণালয় এবং স্থানীয় প্রশাসনের পাশাপাশি সারাদেশে আওয়ামী লীগ এবং এর সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরাও পাশে আছে।

আজ গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে ২৯৫ কোটি টাকা ব্যয়ে যমুনা নদীতে ৪ দশমিক ৫ কিলোমিটার নদী তীর সংরক্ষণ, ৮ দশমিক ৫ কিলোমিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও ১০ কিলোমিটার ড্রেজিং কার্যক্রম গাইবান্ধায় চলমান আছে। গাইবান্ধা শহরকে বন্যার কবল থেকে রক্ষায় ২৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫০ কিমি বেড়ি বাঁধ নির্মাণে আরো একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, গাইবান্ধায় ১৮টি ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্ট আছে। এর মধ্যে একটির আপৎকালীন কাজ শেষ হয়েছে, ৩টির কাজ চলমান এবং ১৪টি পয়েন্টের কাজ আজকেই স্পট টেন্ডার করা হয়েছে।

এর আগে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে উপমন্ত্রী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির বিশেষ সভায় যোগ দেন। ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক রোখছানা বেগমের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার এডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া, ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান, হুইপ মাহবুব আরা গিনি, সংসদ সদস্য শামীম হায়দার, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কামাল, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব রোকনুউদৌলা, আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী-সহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা এবং জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

ফেসবুকে আমরা...