×
  • আপডেট টাইম : 15/03/2020 12:04 PM
  • 22 বার পঠিত

বাংলাদেশে আরও দুইজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ‌্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

শনিবার (১৪ মার্চ) রাতে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ব্রিফিংয়ে এ কথা  জানান স্বাস্থ‌্যমন্ত্রী।

এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম উপস্থিত ছিলেন। দেশের করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় করণীয় নির্ধারণে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং সরকারের নীতিনির্ধারকদের নিয়ে বিশেষ বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

স্বাস্থ‌্যমন্ত্রী জানান, আক্রান্তদের দুজনের মধ্যে একজন ইতালি ও একজন জার্মানি থেকে এসেছেন।

এর আগে গত ৮ মার্চ প্রথমবারের মতো তিনজন করোনা রোগী শনাক্ত হন। শনিবার দুইজন নিশ্চিত হওয়ার পর এই ভাইরাসে শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচ জনে। এদের মধ্যে আগের তিনজন করোনামুক্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন।

শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে সেব্রিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ মোট তিনজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে দুজন আগেই সুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে একজন ইতোমধ্যে বাড়ি ফিরে গেছেন। আরেকজন সুস্থ হলেও হাসপাতাল ছেড়ে যাননি।’

গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনার অস্তিত্ব ধরা পড়ে; এরপর তা ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বব্যাপী। বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৪৫ হাজার ৩৬৯ জনে; মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৪২৯ জনের।

করোনাভাইরাসকে এরই মধ্যে বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সার্স ও মার্স পরিবারের সদস্য করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ফ্লুর মতো উপসর্গ নিয়ে যে রোগ হচ্ছে তাকে বলা হচ্ছে কোভিড-১৯।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, এখন পর্যন্ত এ রোগে মৃত্যুহার ৩.৪ শতাংশ, যেখানে মৌসুমি ফ্লুতে মৃত্যুহার থাকে ১ শতাংশের নিচে। তবে করোনায় ৯ বছরের নিচের কেউ মারা যায়নি। প্রবীণদের মধ্যেই মৃত্যুহার বেশি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

ফেসবুকে আমরা...